সবজি ও মাছের দাম কমেছে ( ভিডিও )

সবজি ও মাছের দাম কমেছে

সবজি ও মাছের দাম কমেছে এমনটাই দেখা যাচ্ছে রাজধানীর কাঁচাবাজার ঘুরে। আগের চেয়ে দাম অনেকটা কমে বিভিন্ন শীতকালীন সবজি ও মাছের দাম সাভাবিক হয়ে এসেছে বলে জানা গেছে। তবে খুব একটা কমেনি পেঁয়াজের দাম। চলুন দেখি আজকের বাজারদর নিয়ে খবরের ভিডিও যেটি তুলে ধরেছে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের অভিযোগগুলো।

সবজি ও মাছের দাম কমেছে ( ভিডিও )

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ক্রেতাদের অভিযোগ যে কোনো কিছু দাম যদি ৪ টাকা বাড়ে তাহলে কমে ১ টাকা যেটা আসলে ঠিক না। আবার অনেকে বলেন যে বাজারে এসে জিনিসের দাম কম পেলে সেটা অবশ্যই ভালো তাদের জন্য।

পেঁয়াজের বাজারে যে আগুন ছিলো সেটা কিছুটা কমেছে, দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে প্রায় ৫০ টাকা কেজি। তবে বাজারে পেঁয়াজ আছে পর্যাপ্ত পরিমানে। কিন্তু এরপর ও পেঁয়াজের দাম তেমন একটা কমতে দেখা যাচ্ছে না।

দেশি রুই কাতলা মাছ বিক্রি হচ্ছে মাছের আকারের উপরে ভিত্তি করে ২৫০ থেকে ৪৫০ টাকা কেজি। টেংরা মাছ ৩৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে আর চাষের তেলাপিয়া ১২০ টাকা দরে। পাঙ্গাস মাছই ছিলো বাজারে মোটামুটি কম দামের যেটা ১০০ টাকা কেজি বিক্রি হতে দেখা গেছে।

এক ক্রেতা বললেন যে উনি আগে ইলিশ মাছ ১৪০০ টাকা করে কিনেছিলেন আর আজকে কিনেছেন এক জোড়া ১২০০ টাকা দিয়ে। এক বিক্রেতা তার বিক্রি করা মাছের দাম বলেন, তেলাপিয়া ১২০ টাকা, কার্ফু মাছ ১৬০ টাকা ও নলা মাছ ২০০ টাকা কেজি বিক্রি করছেন তিনি।

সবজি ও মাছের দাম কমেছে
সবজি ও মাছের দাম কমেছে

সবজির বাজার ঘুরে ও দেখা গেছে দাম কমেছে প্রায় সব সবজির। টমেটো আগে ৩০ থেকে ৩৫ টাকায় বিক্রি হলেও এখন বিক্রি হচ্ছে ২০ থেক ২৫ টাকা দরে। প্রায় ১০ টাকার মতো কেজিতে কমেছে টমেটোর দাম।

ফুককপি ২৫ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে আর শিম পাওয়া যাচ্ছে ৩৫ টাকা কেজিতে যা কিছুটা সাভাবিক বলেই মনে হচ্ছে সবার কাছে। তবে যেভাবে পেঁয়াজের দাম এক লাফে আকাশ ছুঁয়েছিলো সেই হারে কমেনি দাম, বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা কেজি আর এর কমে মিলছে না পেঁয়াজ।

মাংসের বাজার ঘুরে দেখা গেছে যে মাংসের দাম আছে আগের মতোই। গরুর মাংস ৪৮০ থেকে ৫০০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে আর খাসির মাংস বিক্রি করা হচ্ছে ৭৫০ থেকে ৮০০ টাকা কেজিতে।

আজকের খবর ছিল ঢাকার বাজার দর নিয়ে আশা করি আমাদের এই খবর আপনাদের ঢাকা ও ঢাকার আশে পাশের বাজার দর নিয়ে একটা ভালো ধারনা দিতে পেরেছে। bangla news পেতে সব সময় থাকুন আমাদের সাথে আর প্রতিদিন ভিজিট করুন আমাদের খবরের ওয়েবসাইট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *