শরীর ফর্সা করার উপায়

শরীর ফর্সা করার উপায়

শরীর ফর্সা করার উপায় নিয়ে অনেকের অনেক চিন্তা। আমাদের শরীর অনেক সময় যত্নের অভাবে, আবার অনেক সময় বাইরের ধুলোবালি রোদের কারনে কালো হয়ে যায়। যারা বোরকা পরেন তাদের এই সমস্যা কম কিন্তু সবাই তো বোরকা পরেন না, তাই রোদে আর বাইরের ধুলো ময়লা লেগে শরীরের উজ্জলতা হারায়। তাই আজকে আমরা শরীর ফর্সা করার উপায় জানবো, চলুন জেনে নেই।

শরীর ফর্সা করার উপায়

শরীর ফর্সা করার উপায়
শরীর ফর্সা করার উপায়

( ১ ) দুধ, হলুদের গুড়া ও বেসন মিশিয়ে শরীরে, হাতে ও পায়ে মেখে ২০ মিনিট পরে ধুয়ে ফেলুন আর এটি গোসলের আগে করতে পারেন।

( ২ ) শশার রসের সাথে সমান পরিমান লেবুর রস নিন আর সাথে নিন পরিমান মতো একটু হলুদ। এই তিনটি জিনিস একসাথে করে ভালো বানে মিশিয়ে নিন, তারপর মাখুন শরীরে। এটি খুব ভালো ফল দিবে শরীর ফর্সা করতে।

( ৩ ) মধু, গুঁড়ো দুধ, হলুদ বাটা, চন্দন, মুলতানি মাটি, এই সবগুলো সমান পরিমানে একসাথে মিশিয়ে শরীরে মাখুন, কিছুক্ষন পরে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে কয়েকবার করলে ভালো ফল পাবেন।

( ৪ ) গ্লিসারিন, গোলাপজল ও শশার রস একসাথে মিশিয়ে শরীরে ভালো ভাবে মাখুন। এই প্যাকটি কিন্তু কালচে দাগ দূর করার জন্য খুব উপকারি।

( ৫ ) গোলাপজল আর কমলার খোসার গুঁড়ো দিয়ে ভালো ভাবে মিশিয়ে ঘাড়ে, হাতে, পায়ে, এক কথায় শরীরেরে সব জায়গায় ম্যাসাজ করুন। মাঝে মাঝেই ব্যবহার করুন ভালো ফল পেতে।

( ৬ ) গোলাপজল ও লেবুর রস মিশিয়ে প্রতিদিন রাতে ভালো ভাবে হাতে, পায়ে, ঘাড়ে ও সারা শরীরে ভালো ভাবে ম্যাসাজ করুন। মাস শেষে নিজেই খেয়াল করতে পারবেন ফলাফল।

( ৭ ) টমেটোর রস, লেবুর রস ও মধু এক সাথে মিশিয়ে শরীরে লাগান ভালো ভাবে, তারপর ধুয়ে ফেলুন ৩০ মিনিট পরে।

( ৮ ) যদি এটা ভেবে থাকেন যে আপনি প্রতিদিন বাইরের ভাজা পোড়া খাবেন, শাক সবজি ফল খাবেন না, আর শরীরে এটা সেটা মেখে ফরসা হয়ে যাবেন তাহলে ভুল ভাবছেন। অবশ্যই প্রতিদিন কোনো না কোনো শাক সবজি আর ফল খেতেই হবে।

( ৯ ) পানি ছাড়া কখনো শরীর ফর্সা করা সম্ভব না। তাই প্রতিদিন প্রচুর পরিমান পানি খেতে হবে। কতো টুকু খেতে হবে সেটা বললাম না, কারন আমি যতোটুকু সম্ভব ততো টুকু খাবেন। সবার শরীর তো আর সমান না। তাই পরিমান টা বললে ভুল হতে পারে। তাই বলবো যে বেশি বেশি পানি খাবেন। প্রতিঘন্টায় খাবেন পানি। অনেকে শুধু খাবার এর সময় পানি খায়, খাবার এর সময় ছাড়া ও পানি খেতে হবে প্রচুর পরিমান।

( ১০ ) নারিকেলের দুধের সাথে যদি চন্দন গুঁড়ো মিশিয়ে শরীরে মাখেন তাহলে শরীর ফর্সা হবে।

( ১১ ) যতখানি বাদাম তেলে তার অর্ধেক পরিমান অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে শরীরে মাখুন। এতে শরীর ফর্সা হয়।

( ১২ ) মেনিকিউর ও পেডিকিউর কিন্তু সপ্তাহে একবার হলে ও করতে ভুলবেন না। বাসায় বসে গরম পানিতে শ্যাম্পু, গ্লিসারিন, লেবুর রস ও লবন পরিমান মতো সব মিশিয়ে হাত পা ঐ পানিতে ডুবিয়ে রাখাকেই পেডিকিউর বলে। পানি কিন্তু হালকা গরম হবে। আর নখ পরিষ্কার করার জন্য যে সেট গুলো পাওয়া যায় ও গুলো ব্যবহার করে হাত পা পরিষ্কার করাকেই মেনিকিউর বলে।

 

শরীর ফর্সা করার জন্য যে সব প্রাকৃ্তিক উপায় গুলোর কথা বললাম, সব গুলোই ভালো কাজ করে। আর সব প্যাক গুলো ৩০ মিনিট এর বেশি শরীরে মেখে রাখার দরকার নেই। ভালো ভেবে শরীরে প্যাকগুলো ম্যাসাজ করবে খুব আস্তে আস্তে, তারপর কিছুক্ষন অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলবেন।

এটা মনে করবেন না যে একদিন বা এক সপ্তাহ ব্যবহার করলে ভালো ফলাফল পাবেন। ভালো ফলাফলের জন্য কয়েক মাস ব্যবহার করতে হবে নিয়ম গুলো।

বাজারে অনেক ক্রিম পাওয়া যায়। সেগুলো হয়তো অনেক তাড়াতাড়ি কাজ করবে, কিন্তু সেগুলো কিন্তু শরীরের জন্য ক্ষতিকর, এটা সব সময় মনে রাখবেন।

আর যে সব ফল বা সবজি বা আরো অনেক কিছু যেগুলো আপনি শরীরে মাখবেন সেগুলো কিন্তু অবশ্যই ১০০% টাটকা আর ১০০% খাটি হতে হবে। কোনো রাসায়নিক দেয়া ফল বা সবজি বা ভেজাল কিছু কখনোই শরীরে লাগাবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *