বাইক নিয়ে মেয়ের কান্ড ! ( ভিডিও )

বাইক নিয়ে মেয়ের কান্ড

বাইক নিয়ে মেয়ের কান্ড দেখুন এই ভিডিওতে। আর এটা নিশ্চিত করে বলতে পারি যে এই তরুণী যা করেছে মটর সাইকেল নিয়ে তার জন্য সবাই ভিডিও কয়েকবার দেখেও আবার দেখতে ইচ্ছা করবে। অবশেষে কি হয়েছে সেটাও দেখতে পাবেন ভিডিওতে। চলুন দেখে নেই এই হট মেয়েটার কান্ড। হট বললাম কারন ড্রেস দেখেই বুঝতে পারছে। চলুন দেখি ভিডিওটি।

বাইক নিয়ে মেয়ের কান্ড ! ( ভিডিও )

কেমন লাগলো হট মেয়ের মটর সাইকেল চালানোর ভিডিও দেখে? তার আগে জিজ্ঞেস করি যে কয়বার দেখেছেন ভিডিওটি? যাই হোক, এভাবে বাইক চালানোকে বলে ইচ্ছা করে মরনকে ডেকে আনা।

এই যুগের ছেলে মেয়েদের যে কেনো এই ধরনের ইচ্ছা ইচ্ছা গুলো জাগে সেটা কেউই ভালো ভাবে জানে না তবে অনেকের ধারনা যে তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে জনপ্রিয় হবার জন্যই বিপদজনক কাজগুলো করে থাকে।

বাইকের সামনে চাকা একেবারেই আকাশের দিকে উঠিয়ে দিয়ে মটর সাইকেলের পেছনের অংশ রাস্তার সাথে লাগিয়ে আগুনের ফুলকি বের করছে। এর চাইতে বেশি বিপদজনক কাজ আর কি হতে পারে বাইক চালানোর জন্য!

আর মেয়েটাকে তো দেখতেই পাচ্ছে। মাথায় সাধারন হেলমেট ছাড়া আর কিছুই পরেনি। সাধারনত যারা বাইক রেস করে সে সব ছেলেরা অনেক ধরনের সেফটির জন্য অনেক রকমের কভার পরে হাতে পায়ে।

আর এই মেয়েটার ড্রেসের অবস্থা তো ভয়াবহ রকমের। আর বেশি কিছু বললাম না। ঠিক আছে এভাবে বাইক চালিয়ে নিজের কেরামতি দেখাচ্ছে সেটা মেনে নেয়া যায় কিন্তু আপনাদের কি মনে হচ্ছে না যে মেয়েটার বাইক রেসারদের মতো কিছু সেফটি কভার পরা হাতে পায়ে?

বাইক রেসার বলতে তাদের বোঝাচ্ছি যারা বাইক রেসিং করে। দেখে থাকবেন অনেকে টিভিতে বা ইন্টারনেটে যে তারা সারা শরীর একটা অন্যরকম কাপড় দিয়ে ঢাকা থাকে। আসলে সেটা কাপড় মনে হলেও সেগুলো হাত, পা, কোমর, পিঠের, মেরুদন্ড এইসবের জন্য অনেক রকমের কভাবের মতো থাকে থাকে যা পরে গেলে আঘাত থেকে অনেকটা রক্ষা করে।

বাইক নিয়ে মেয়ের কান্ড দেখে উৎসাহিত হয়ে দয়া করে এমন কিছু করতে যাবেন না। সব সময় বিরত থাকুন এমন সব কাজ থেকে যা আপনাকে জনপ্রিয় করলেও আপনার জীবন হারানোর সম্ভাবনা থাকে।

রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে কি লাভ যদি আপনি নিজে জীবিতই না থাকেন! চাইলে ভালো কিছু করে জনপ্রিয় হতে পারেন তবে জীবন নিয়ে বাজি খেলা বোকা লোকদের কাজ।

বাইক নিয়ে মেয়ের কান্ড
বাইক নিয়ে মেয়ের কান্ড

আজকের খবর আপনাদের একটা মেসেজ দেবার জন্য। আর সেই মেসেজটি হচ্ছে কখনো এমন কোনো কাজ করবেন না যেই কাজ করে আসলে কোনো লাভ নেই।

এখন অনেকে বলতে পারেন এভাবে মেয়েটি বাইক চালিয়ে অনেক জনপ্রিয় হয়ে গেছে। কিন্তু এই তরুণীর মটর সাইকেল চালানো যে কতোটা বিপদজনক ছিলো সেটা নিশ্চই বুজতে পারছেন।

রাতারাতি জনপ্রিয়তা পেলেও সেই জনপ্রিয়তার মধ্যে কোনো উপকার নেই যেই জনপ্রিয়তায় কোনো মানুষের উপরকার হয় না।

এমন সব bangla news যদি আরো পেতে চান তাহলে অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইটটি প্রতিদিন ভিজিট করতে ভুলবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *