কাপলদের ফ্রি রিকশা ভ্রমণ !

কাপলদের ফ্রি রিকশা ভ্রমণ

কাপলদের ফ্রি রিকশা ভ্রমণ এ কথাটা শুনে অনেক প্রেমিক প্রেমিকাই খুশি হতে পারেন। আসলেই এমন একটা কিছু আয়োজন করেছিলো একটি প্রতিষ্ঠান তবে সেটা ছিলো শুধুই পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের জন্য। ভুল বললাম, ছাত্র ছাত্রীদের জন্য না, প্রেমিক প্রেমিকাদের জন্য। চলুন যেনে নেই বিস্তারিত।

কাপলদের ফ্রি রিকশা ভ্রমণ

কাপলদের ফ্রি রিকশা ভ্রমণ
কাপলদের ফ্রি রিকশা ভ্রমণ

ছবি দেখে অবশ্যই বুঝতে পেরেছেন যে এটা কোনো প্রতিষ্ঠানের কাজ। তবে আমাদের আজকের খবর অন্য সব খবরের মতোই ইন্টারনেট থেকে নেয়া।

তবে যে ছবিটি আপনারা দেখতে পাচ্ছেন তাতে পরিস্কার ভাবে কম্পানীর নাম সহ ২০১৮ সাল লেখা আছে তার মানে ঘটনা একেবারেই সত্য।

তবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় আর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় তাদের ক্যাম্পাসে এ ধরনের কোনো কিছুকে বাতিল ঘোষণা করেছে বলে জানা গেছে। আর তারা বাতিলের কারন হিসেবে দেখিয়েছে ভুল তথ্য দেয়া ও সঠিক ভাবে আনুমতি না নেয়াকে।

কারন তারা অনুমতি নেয়ার সময় বলেছিলো যে শিক্ষার্থীদের জন্য ফ্রি পরিবহন ব্যবস্থা এটি। কিন্তু পরে সবাই দেখতে পান যে এটি শুধু মাত্র কাপলদের জন্য।

এমনিতেই আমরা সবাই জানি যে আমাদের বর্তমান সমাজের আধুনিক ছেলে মেয়েরা ভালোবাসার নামে খারাপ কিছু করে বেড়ায় আর আজক কাল প্রতিদিন কোনো না কোনো ধর্ষণের ঘটনা আমরা শুনতে পাই।

তার ছাড়াও এ রকম আয়োজন ভালোবাসাকে শুধুমাত্র প্রেমিক প্রেমিকার মধ্যেই সীমাবদ্ধ করে রাখার বেপারটাকে বোঝানো হয়েছে। এটি কি ঠিক হয়েছে? আপনারাই বলুন।

করতে পারতেন এমন কিছু যে যদি কনো বয়স্ক স্বামী স্ত্রী যদি চান তাহলে ফ্রিতে ঘুরতে পারবেন রিকশাতে। কিন্তু এখানে কাপলদের ফ্রি রিকশা ভ্রমণ তাও আবার বিশ্ববিদ্যালয়ে।

আমরা সবাই জানি যে বিশ্ববিদ্যালয়ে যতো কাপল বা প্রেমিক প্রেমিকা আছে তারা বিবাহিত না। আমাদের সমাজ তো এমনিতেই বিয়ের আগে সম্পর্কে ভালো চোখে দেখে না।

তারমধ্যে যদি এমন আয়োজন করা হয় তাহলে বলতে হয় এটা আমদের চিন্তা ধারণাকে অনেক নিচে নামিয়ে দিয়েছে। আমরা এখন প্রতিষ্ঠানের প্রচারের জন্য অনেক নিচে নেমে যাচ্ছি যেটা মোটেও উচিত না।

আজকের খবর যদি কারো মনে কোনো কষ্ট দিয়ে থাকে তাহলে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি আমরা। আর কোনো প্রতিষ্ঠানকে ছোট করা আমাদের উদ্দেশ্য ছিলো না। আর বড় কথা হলো এমন কিছু তো প্রতিষ্ঠান আয়োজন করে না, করি আমারাই।

হয়তো এমন কিছু আয়োজন যারা করেছেন তারা বেপারটাকে ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে প্রেমিক প্রেমিকাদের আনন্দ দিতে চেয়েছিল কিন্তু ভালোবাসা তো অনেক বড় যেটাকে কাপলদের মধ্যে বেঁধে রাখা সম্ভব না।

এমন সব bangla news আরো পেতে আমাদের ওয়েবসাইট প্রতিদিন ভিজিট করতে ভুলবেন না যেনো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *